ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়

আজকের আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের জানাবো ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়। আমরা জানি বর্তমান সময়ে ইউটিউব হচ্ছে একটি ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম এখানে আমাদের প্রয়োজনীয় যে কোনো ধরনের ভিডিও লিখে সার্চ করলে এটি আমরা পেয়ে যায় ইউটিউব এর মাধ্যমে।

বর্তমান সময়ে যারা অনলাইন থেকে ইনকাম করার সহজ উপায় খুঁজে থাকেন তাহলে আপনারা ইউটিউব চ্যানেল বেছে নিতে পারেন। বর্তমান সময়ে ইউটিউব চ্যানেল গুলো ব্যবহার করে মানুষ নিজের ঘরে বসে থেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে।

আপনি যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে পারেন এবং সেখানে কোয়ালিটি সম্পন্ন ভিডিও আপলোড করতে পারেন তাহলে আপনারা সেখান থেকেও বেশ ভালো পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় সমূহ গুলো জানতে চান তবে আমাদের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আপনার জানি যারা বর্তমান সময়ে ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে কাজ করছে তাদের চাকরি করার কোন প্রয়োজন পড়ে না কারণ এখানে অনেক ইউটিউবার রয়েছে যারা প্রতি মাসে 1 লক্ষ টাকার বেশি ইনকাম করতে পারে ইউটিউব চ্যানেল থেকে।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে সোম দিয়ে কাজ করতে হবে যদি আপনি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার পর সেখানে পর্যাপ্ত পরিমানে সময় দিতে পারেন তাহলে সেখান থেকে দ্রুত টাকা ইনকাম করার শুরু করতে পারবেন।

আপনার যদি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে আপনাদের অবশ্যই একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হবে তবে চিন্তার কোন কারণ নেই ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করা মাত্র কয়েক সেকেন্ডের কাজ। আপনাদের শুধুমাত্র একটি ইমেইল একাউন্ট ব্যবহার করেই ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে পারবেন।

আমার জানা মতে বর্তমানে এমন অনেক অল্প বয়সের লোক রয়েছে যারা ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে প্রতিমাসে লক্ষাধিক টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে আপনি যদি অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে শুরু করে দিতে পারেন অনলাইন ইনকাম।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়
ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়

কিভাবে ইউটিউব থেকে আয় করা যায়

ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে অবশ্যই নিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে নিতে হবে। চ্যানেল তৈরি করার পর সেখানে ভালো ভালো ভিডিও আপলোড করতে হবে।

ইউটিউব চ্যানেলে আকর্ষণীয় ইউনিক কিছু ভিডিও তৈরী করে আপলোড করতে পারলে সেখানে আপনারা প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন নিজের ঘরে বসেই।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে বেস্ট ভালো পরিমাণের সময় দিতে হবে ইউটিউব এর উপরে কারণ এখানে যত বেশি শ্রম দিতে পারবেন ঠিক তত পরিমাণের তাড়াতাড়ি ইউটিউব চ্যানেল উন্নতি করতে পারবেন এবং বেশি পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করার মাধ্যম হচ্ছে ভিডিও আপলোড করা এবং ইউটিউব চ্যানেলটিকে মনিটাইজেশন করে গুগল এডসেন্স থেকে গুগল এড ব্যবহার করে টাকা ইনকাম করা।

আপনার যদি ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করা গুগল এডসেন্স যুক্ত করতে পারেন তবে সেখান থেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করা সম্ভব। ইউটিউব থেকে আয় করার জন্য অবশ্যই আপনাকে এই শর্তগুলো পূরণ করার পর ইনকাম করার শুরু করতে হবে কিভাবে আপনারা ইউটিউব থেকে আয় করবেন সে বিষয়ে টুকিটাকি ধারণা পেয়েছেন।

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে কি কি লাগে

আপনার যদি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে ইনকাম করার চিন্তা করে থাকেন তবে আপনাকে বেশ কিছু বিষয় জেনে নিতে হবে আপনার যদি সে বিষয়গুলো জানতে পারেন তবে সহজেই একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে সেখান থেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার জন্য বেশি কিছু জিনিসের প্রয়োজন হয় না শুধুমাত্র একটি জিমেইল একাউন্টের মাধ্যমে আপনারা ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে পারবেন।

আমরা জানি অনলাইনে যে কোন কাজ করার জন্য অবশ্যই ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করতে হয় আপনারা ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার সময় ইন্টারনেট কানেকশন দিয়ে সহজেই একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার পদ্ধতি

আপনি যেহেতু ইউটিউব থেকে ইনকাম করার জন্য আগ্রহী এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ধৈর্য এবং শ্রম দিতে হবে। আপনি ধৈর্য সহকারে যদি ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করতে পারেন তবে একদিন এমন সময় আসবে আপনি ঘরে বসেই প্রচুর পরিমানের টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনারা একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে সেখানে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আপলোড করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন যদি গুগোল অ্যাডসেন্সে যুদ্ধ না করে ইনকাম করতে চান তারপরও আপনার অনেক সহজ হয়ে যাবে সেগুলো হচ্ছে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি গুলোর ভিডিও প্রস্তুত করে সেগুলো ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করে আপনার কোম্পানির সকল প্রকার প্রডাক্ট ও পণ্যগুলো প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে বিক্রি করতে পারবেন।

ইউটিউব থেকে আয় করার জন্য আপনাকে যে জিনিসগুলো বিশেষভাবে নজর দিতে হবে সেগুলো হচ্ছে-

ইউটিউবে নিজের একটি চ্যানেল তৈরি করা

আপনারা নিচের ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার জন্য সর্বপ্রথম এবং দরকারি কাজ হচ্ছে নিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করা চ্যানেল তৈরি করার পর আপনি সেখানে মন মত ভিডিও তৈরী করে আপলোড করতে পারবেন।

আপনারা ইউটিউব চ্যানেল বানানোর জন্য প্রথমে ইউটিউব ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন তারপর আপনারা প্রথমে নিজের জিমেইল অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগিন করবেন আমরা আগেই বলেছি ইউটিউব গুগলের একটি সার্ভিস তাই ইউটিউবে লগইন করতে হলে বা অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে গেলে আপনাকে শুধুমাত্র জিমেইল আইডি আর পাসওয়ার্ড দিয়ে প্রবেশ করতে হবে।

আমরা জানি বর্তমান সময়ে যারা বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস ব্যবহার করে তাদের সকলেরই একটি হলেও জিমেইল অ্যাকাউন্ট রয়েছে আর আপনি নিজের সেই জিমেইল আইডি দিয়ে ইউটিউবে লগইন করে নিতে পারবেন আপনি যদি গুগোল একাউন্ট খুলে না থাকেন তবে নতুন করে জিমেইল ওয়েবসাইটে গিয়ে একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নেবেন তারপর নিজের ইউটিউব চ্যানেলে গিয়ে আপনি সরাসরি ভিডিও আপলোড করতে পারবেন।

Youtube এ চ্যানেল কিভাবে বানাবেন ?

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার জন্য নিজের ইউটিউব একাউন্টে গিয়ে জিমেইল আইডি লগইন করতে হবে ইউটিউবে লগইন করার পর আপনি ঠিক উপরে ডানপাশে দিকে একটি জিমেইলের ছোট আইকন লোগো দেখতে পারবেন আপনাকে সেই আইকন ক্লিক করতে হবে।

  • সেই সুতো আইকনে ক্লিক করার পর আপনারা দেখতে পারবেন “একটি চ্যানেল তৈরি করুন”।
  • তারপর সেই অপশনে ক্লিক করার পর দেখতে পারবেন “ছবি আপলোড করুন” এখানে আপনি যে কোন ছবি আপলোড দিতে পারেন।
  • উপরে ছবি আপলোড করার পর নিচের অংশে দেখতে পারবেন “নাম”
  • নাম লেখার পর নিচের অংশ দেখতে পারবেন “চ্যানেল তৈরি করুন” সেখানে ক্লিক করবেন।
  • তারপর ইউটিউব এর একটি ড্যাশবোর্ড আপনার সামনে চলে আসবে।
  • ড্যাশবোর্ড থেকে আপনারা দেখতে পারবেন “চ্যানেল কাস্টমাইজ করুন” সেখানে ক্লিক করে আপনারা পছন্দমত চ্যানেলটিকে সাজিয়ে নিবেন।
  • আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন যে কিভাবে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হয়।

আপনারা উক্ত বিষয় গুলো অনুসরণ করে সহজেই একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে পারবেন ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার পর আপনার কাজ শুরু।

ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করুন

আপনারা ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার পর সেখান থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য অবশ্যই ভালো ভালো ভিডিও আপলোড করতে হবে। আপনারা যে ভিডিওগুলো তৈরি করবেন সেগুলো যাতে কোয়ালিটি সম্পন্ন এবং ইউনিট ভিডিও হয়।

ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করার আগে আপনাকে চিন্তা করতে হবে মানুষকে ধরনের ভিডিও গুলো পছন্দ করে থাকে মানুষের পছন্দ অনুযায়ী যদি আপনারা ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করতে পারেন তাহলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলে যে সকল ভিডিও গুলো প্রকাশ করবেন সেগুলো মানুষ দেখতে আগ্রহী থাকবে।

ইউটিউব চ্যানেলে কি ধরনের ভিডিও গুলো মানুষ দেখতে বেশি পছন্দ করে সেগুলো হলো-

  • টেকনোলজি ভিডিও
  • অ্যাপ রিভিউ ভিডিও
  • মোবাইল ফোন রিভিউ ভিডিও
  • টিউটোরিয়াল ভিডিও
  • রেসিপি তৈরির ভিডিও
  • গেমিং চ্যানেল ভিডিও
  • অনলাইন ইনকামের টিপস ভিডিও
  • ব্লগিং টিপস ভিডিও ইত্যাদি

আপনার ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার পর চিন্তা করবেন আপনি কোন ক্যাটাগরি নিয়ে ইউটিউব চ্যানেলে কাজ শুরু করবেন আমরা উপরে আপনাকে কিছু টপিক বা ক্যাটাগরি প্রস্তুত করে দিয়েছি আপনারা এখান থেকে যে কোন একটি বিষয় নিয়ে ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করা শুরু করতে পারেন।

ইউটিউবে মনিটাইজেশন চালু করুন

আপনারা যখন ইউটিউব চ্যানেলে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আপলোড করার পর সেখান থেকে ইনকাম করার চিন্তা করবেন তখনই আপনাদের ইউটিউব মনিটাইজেশন চালু করতে হবে। আপনি যদি ইউটিউব চ্যানেলে লক্ষ লক্ষ ভিডিও আপলোড করেন সেখান থেকে কিন্তু ইনকাম হবে না যদি ইউটিউবে মনিটাইজেশন চালনা করেন।

ইউটিউব চ্যানেলে মনিটাইজেশন চালু করার জন্য আপনাকে কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে সেগুলো হলো-

  • এক বছরের মধ্যে ইউটিউব চ্যানেলে 1000 সাবস্ক্রাইব হতে হবে
  • এক বছরের মধ্যে ইউটিউব চ্যানেলে 4000 ওয়াট টাইপ থাকতে হবে

আপনারা এই সত্যটি সঠিকভাবে পূরণ করতে পারলেই ইউটিউব মনিটাইজেশন চালু করে ইনকাম করা শুরু করতে পারবেন। ইউটিউব চ্যানেলে মনিটাইজেশন করার পর আপনি ইউটিউবে যে সকল ভিডিও আপলোড করবেন সে ভিডিও গুলোতে বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন দেখানো হবে সেই বিজ্ঞাপন গুলো যখন ভিউয়ার্স আপনার ইউটিউব এর ভিডিও গুলো দেখার সময় দেখা থাকবে তখনই আপনার টাকা ইনকাম হবে।

এখন আপনাদের চিন্তা হতে পারে যে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে আমরা সেখানে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আপলোড করেছি এবং ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজ অন করেছি। এবং সেখান থেকে আমরা মোটামুটি ভালো মানের টাকা ইনকাম করেছি কিন্তু এ টাকা গুলো কিভাবে তুলব।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে টাকা তোলার উপায়

আপনারা ইউটিউব চ্যানেল থেকে যে পরিমাণ টাকা ইনকাম করবেন সেই পরিমাণ টাকা আপনারা সহজেই উত্তোলন করতে পারবেন। আপনারা ইউটিউব চ্যানেলে যখন মনিটাইজেশন চালু করবেন তখন অবশ্যই গুগল এডসেন্স এর সাথে আপনার ইউটিউব চ্যানেল যুক্ত হওয়ার পর আপনারা এডসেন্স এর বিজ্ঞাপন দেখি ইউটিউব থেকে আয় করতে পারেন।

ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও গুলো চলার সময় যখন বিজ্ঞাপন শুরু হয় তখন টাকা ইনকাম হয় সেই টাকাগুলো জমা হয় গুগল এডসেন্স এর একাউন্টে। আপনাদের ইউটিউব ভিডিও গুলো দেখার পর যে পরিমাণ টাকা ইনকাম হয় সেগুলো গুগোল অ্যাডসেন্সে জমা হয় এবং যখন আপনাদের ইনকাম এর পরিমাণ 100 ডলার হয় তখন গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আপনাদের নিজস্ব ব্যাংক একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করে দেয়।

গুগোল অ্যাডসেন্সে যখন আপনার 100 ডলার হয় তখন সেই টাকাটি আপনার ব্যাংকের প্রধান করে দেবে আপনি যে ব্যাংকের একাউন্ট গুগোল অ্যাডসেন্সে যুক্ত করবেন। গুগল এডসেন্স এর নিয়ম অনুযায়ী আপনি যে পরিমাণ টাকা ইনকাম করবেন সে পরিমাণ টাকা প্রতি মাসের 21 তারিখ থেকে 26 তারিখের মধ্যে আপনার নিজের ব্যাংক একাউন্টে ট্রান্সফার করে দেবে।

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা আজ আমাদেরকে আর্টিকেলে আপনাদের জানানো হল ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়। আপনি যদি উপরের বিষয়গুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করে থাকেন তবে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে সেখানে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আপলোড করে অবশ্যই টাকা ইনকাম করতে পারবেন তাও আবার নিজের ঘরে বসে।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায় ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়

আমাদের আর্টিকেলটির যদি আপনাদের কাছে ভাল লেগে থাকে তবে এটি আপনার বন্ধুদের সাথে অবশ্যই শেয়ার করবেন। আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

You May Like

Leave a Comment